(লক্ষীর ভান্ডার নতুন ফর্ম) lakshmir bhandar scheme & new form download

লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প নতুন ফর্ম

WhatsApp Group (Join Now) Join Now
Telegram Group (Join Now) Join Now

আপনি যখন এই জায়গায় এসেছেন আপনাকে এতটুকু বলতে পারি লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প নতুন ফর্ম সম্পর্কে সম্পুর্ন তথ্য এখানেই জানতে পারবেন। লক্ষীর ভান্ডার আগেকার ফর্ম বাতিল হয়ে গেছে এবং নতুন করে আবারও ফর্ম দেয়া হয়েছে । লক্ষীর ভান্ডার নতুন ফর্ম Lakshmir bhandar new form নিতে হবে সকলকে। তাছাড়া আপনি এখান থেকে সম্পূর্ণ তথ্য জানতে পারবেন কিভাবে ফরম ফিলাপ করতে হবে কি কি ডকুমেন্ট দিতে হবে। আরও বিস্তারিত তথ্য সব নিচে এক এক করে আলোচনা করা হলো।

Table of Contents

    Lakshmir bhandar form download

    এবারের লক্ষীর ভান্ডার এর যে ফরমটি সিটি আগের থেকে কিছুটা আলাদা রয়েছে । আগেরটি আপনারা দেখেছেন যে ফরমটি শুধুমাত্র ইংরেজি ভাষাতেই ছিল কিন্তু এটিতে আপনারা দেখতে পাবেন বাংলা এবং ইংরেজি উভয় ভাষাতেই ফরমটি রয়েছে। এতে সুবিধা হবে সকলেরই যারা নিজে নিজে ফিলাপ করবে তাদের।

    লক্ষীর ভান্ডার নতুন ফর্ম
    লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প ফর্ম

    লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প নিয়ম

    রাজ্যের বা কেন্দ্রীয় যে কোন প্রকল্প যদি প্রকাশিত হয় তাহলে তার একটা নির্দিষ্ট নিয়ম থাকে।আর সেই নিয়ম মেনেই আমাদের আপনাদের সকলকেই ফর্ম থেকে শুরু করে টাকা পাওয়া পর্যন্ত সঠিক ভাবে কাজ করতে হয়। তেমনি এই লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প নতুন ফর্ম এরও কিছু নিয়ম আছে যেগুলো আপনি না জেনে থাকলে ভবিষ্যতে সমস্যা দেখা দিতে পারে।

    লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প অনলাইন আবেদন

    WhatsApp Group (Join Now) Join Now
    Telegram Group (Join Now) Join Now

    যদি আপনি মনে করছেন যে লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প এই ফর্মটি অনলাইনে আবেদন করবেন তাহলে আপনি হয়তো সম্পুর্ন প্রকল্প টি সম্পর্কে জানেন না। কেননা পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বেশির ভাগ প্রকল্প অফলাইনেই এখন দরখাস্ত করতে হবে আর তারজন্য দুয়ারে সরকার প্রকল্পটি রয়েছে। এখানেই আগামীতে সমস্ত কাজ আপনি করতে পারবেন।

    লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প আবেদন তাহলে কিভাবে

    যারা আগেকার দেওয়া ফর্ম পূরণ করে রেখেছেন দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে জমা করবেন বলে আপনি সব আগে নতুন ফর্ম পূরণ করুন এবং আপনার গ্রামের নিকটবর্তী যেখানে দুয়ারে সরকার ক্যাম্প হচ্ছে দেখবেন সেখানেই জমা করতে পারবেন।এই কাজটি অফলাইনে করতে হবে মানে অনলাইনে এরজন্য সুযোগ সুবিধা সেরকম নেই।

    লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প কি কি ডকুমেন্ট লাগবে

    লক্ষীর ভান্ডার ফর্ম পূরণ করার আগে জানুন কি কি লাগবে তাহলে দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে গিয়ে ছুটাছুটি করতে হবে না। (১) ফর্মে একটি পাসপোর্ট সাইজের ছবি সাঁটিয়ে দেবেন। (২) সাস্থ্য সাথী কার্ডের জেরক্স একটি দেবেন। (৩) আধার কার্ড জেরক্স করে একটি দেবেন। (৪) ভোটার কার্ড টিও দিতে পারেন অতিরিক্ত হিসেবে। (৫) আপনার ব্যাঙ্কের খাতার প্রথম পাতার জেরক্স। (৬) ব্যাঙ্কের নতুন IFSC code দেখে নেবেন। (৭) কাস্ট সার্টিফিকেট জেরক্স।

    সাস্থ্যসাথী কার্ড না থাকলে কিভাবে আবেদন

    যাদের সাস্থ্যসাথী কার্ড নেই বা দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে কাগজ জমা করেছেন কিন্তু কার্ড হাতে এখোনো পাননি তারা লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প ফর্ম নিয়ে পুরন করে জমা দিন। এক্ষেত্রে একি ডকুমেন্ট লাগবে শুধু সাস্থ্যসাথী কার্ডের বদলে একটি দরখাস্ত ভালো ভাবে লিখে দেবেন। সেখানে সব সঠিক তথ্যগুলো লিখবেন কেনো আপনি সাস্থ্যসাথী কার্ডে পাননি এখোনো।

    লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প pdf download

    WhatsApp Group (Join Now) Join Now
    Telegram Group (Join Now) Join Now

    এখানে আপনাকে একটি কথা বলি যে,যদি আপনি দুয়ারে সরকার ক্যাম্প থেকে আবেদন করতে চান তাহলে বাইরে থেকে এরজন্য ফর্ম না নেওয়াটায় ভালো হবে।কারন আপনি লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প pdf হয়তো download করতে আপনি এখানেই পারবেন।তারজন্য লিঙ্ক এখানেই দেওয়া হয়েছে।আপনি চাইলে নিতে পারেন এখান থেকেই।লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প form pdf ক্লিক করুন।

    লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প কবে থেকে শুরু হবে

    দুয়ারে সরকার ক্যাম্প ১৬ই আগস্ট থেকে শুরু হচ্ছে এবং চলবে আগামী মাস পর্যন্ত। তাহলে কোথায় কোথায় কবে ক্যাম্প হবে সেটা পিডিএফ আকারে পেয়ে যাবেন অফিসিয়াল Duare sarkaar ওয়েবসাইট থেকে।

    লক্ষীর ভান্ডার দরখাস্ত বাছাই কিভাবে হবে

    লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প ফর্ম পূরণ করে দরখাস্ত করেছেন বা করবেন তাহলে দেখুন কিভাবে বাছাই করা হবে। প্রথমে দুয়ারে সরকার ক্যাম্প থেকে আপনার ফর্ম যাবে বিভিও অফিসে এবং তার পর মহুকুমা অফিসার চেক করবে সেই ফর্মটি ঠিক আছে কিনা। যদি আপনার ফর্মে কোনো রকম ভুল না থাকে তাহলে আপনার নিজের জেলার অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে লিস্ট দেওয়া হবে। তখন জানতে পারবেন যে আপনার নাম যোগ্য হয়েছে।

    কতদিন অন্তর ভেরিফিকেশন হবে

    প্রতি বছরই এই সমস্ত বেনিফেশিয়ারি যারা থাকবে মানে যারা টাকা পাবেন তাদের নাম ও সমস্ত ডকুমেন্ট ফাইল চেক হবে। কারন সে বেচে আছে কিনা সেটা দেখবেন।

    লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প বয়স কত লাগবে

    লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প ফর্ম পূরণ শুরু মাত্র মহিলা প্রার্থীদের জন্য। যদি আপনি বা আপনার বাড়িতে ২৫ থেকে ৬০ বছরে মধ্যে কোন মহিলা থাকে তাহলে সে আবেদন করতে পারে। ৬০ বছরের বেশি বয়স হলে অযথা আবেদন করবেন না টাকা পাবেন না।

    Benefit of lakshmir bhandar (লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প এর লাভ)

    প্রতি মাসে কেউ ৫০০ টাকা আবার কেউ ১০০০ টাকা পাবেন।তবে এক্ষেত্রে ১০০০ টাকা যারা পাবেন তারা sc/st জাতিভুক্ত হবে।আর বাকিরা যারা অন্যান্য জাতিভুক্ত তারা সবাই মাসে ৫০০ টাকা পাবেন।তাই অবশ্যই লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প ফর্ম pdf download করে আগে সব তথ্য জেনেনিন অবশ্যই টাকা পাবেন।

    Related more read

    বিভিন্ন পরীক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় নোট

    Share post